পৃথিবীর রহস্যময় বৃষ্টি

Spread the love

rain

বৃষ্টি এমন একটি জিনিস যা সবার মন ভালো করে দেয় ! আমরা পৃথিবীর যে কোনায় থাকি না কেন কোনো না সময় বৃষ্টি উপভোগ করেছি ! মানুষ যেমন বৃষ্টি পছন্দ করে ঠিক তেমনি পছন্দ করে বৃষ্টিতে ভিজতে পৃথিবীতে এমন জায়গা আছে যেখানে মানুষ বৃষ্টি আর বরফ এক সঙ্গে দেখতে চায় ! আবার কিছু জায়গা আছে যেখানে মানুষ যুগের পর যুগ বৃষ্টি দেখতেই পায়না ! আমরা সবাই জানি আকাশ থেকে বৃষ্টি আর বরফ পড়ে কিন্তু অলৌকিক ভাবে একশ থেকে বৃষ্টি আকারে বৃষ্টি না পড়ে পড়েছে অন্য কিছু যেমন মাছ বৃষ্টি, মাংস বৃষ্টি , রক্ত বৃষ্টি !

১. মাছ বৃষ্টি :- মেক্সিকান শহরে ২০১৭ সালে সেপ্টেম্বর মাসে আবহাওয়া অফিস ঘোষণা দিয়েছিল আব্বহাওয়া খারাপ হয়েছে এবং বৃষ্টি ও হয়েছে এই বৃষ্টির সাথে মাছ ও পড়তে দেখা দিয়েছিল !


২. রক্ত বৃষ্টি :- আপনি কখনো রক্তের বৃষ্টি দেখেছেন ! ২০০১সালে ভারতের কেরালা রাজ্যে এই বৃষ্টি হয়েছিল ! এটি শুধু ভারতে নয় অনেক দেশের বাইরে এই বৃষ্টি হয়েছিল ! বিজ্ঞানীরা এটি পরিক্ষা করে বলে এটি পলিউশন এর জন্য হয়েছিল ! বিজ্ঞানীরা বলেছিলো যে এটি রক্ত না এটি রক্তের মতো লাল একটি পদার্থ !


৩. মাকড়শা বৃষ্টি :- শুনে অবাক লাগবে ব্রাজিলের এমস্পিরিটেসন শহরে থাকা জুয়া পেট্রো তাদের ক্ষেতের উপর বৃষ্টি হতে দেখে এটি ক্যামেরা বন্দি করে ফেলে ! এটি দেখে মনে হয় মাকড়শা গুলো তাদের ধেয়ে আসছে ,কিন্তু এমনটা মোটেও নয় ! বিজ্ঞানীদের মতে পেরাওকিরা ব্রিটীয়া নামক মাকড়শা এতটাই পাতলা জাল বোনে , যা মানুষের চোখে দেখা যায় না ! যা দেখে আমাদের মনে হবে মাকড়শা গুলো আকাশে ভাসছে ! মাকড়শা গুলো আশপাশের জাল বোনে ! তাই যখন জোরে বাতাস হয় তখন তা আশেপাশের এলাকায় ছড়িয়ে যায় ! তা দেখে মনে হয় আকাশে মাকড়সার বৃষ্টি হচ্ছে !


৪. বাদুড় বৃষ্টি :- নাম শুনে অবাক হলেও পৃথিতে এমন কিছু ঘটনা ঘটে যা না মেনে থাকা যায় না ! যেমন অস্ট্রেলিয়ার একসময় তাপমাত্রা বেশি বেড়ে গিয়েছিলো যে সুইমিংপুল সহ অন্যান্য ব্রীজের জল ও নিজের তাপমাত্রা হারিয়ে ফেলে ছিল ঠিক ঐসময়ে দেখা গিয়েছিলো বাদুড় আকাশ থেকে ঝরে পড়ছে এটি তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ার কারণে ঘটেছিল ! তখন তাপমাত্রা ৪৭`কি এর বেশি ছিল তখন এই তাপমাত্রা বাদুড় সহ্য করতে পারেনি ! তখন বিজ্ঞানীদের মতে একলক্ষ বাদুড় মারা গিয়েছিলো !


৫. ছাই বৃষ্টি :- জল ও বরফের বৃষ্টি তো আমরা সবাই দেখেছি ! কখনো শুনেছেন আকাশ থেকে ছাই এর বৃষ্টি হচ্ছে ! শুনে অবাক লাগলেও ঘটনাটি সত্যি , ১৩৮০ সালে ওয়াসিংটনে অনেক মানুষ দেখেছিলো পশ্চিম দিক থেকে ঘন অন্ধকার ঢেকে এসেছিলো আর মেঘের গর্জন হচ্ছিলো , এটা ছিল আগ্নেয়গিরির ফাটার কারণ ! যত মেঘ ঘন হয় ততই ছাই এর বৃষ্টি হতে থাকে ! দেখতে দেখতে পুরো শহরে ৪ ইঞ্চি ছাই পুরো শহরে ভর্তি হয় গিয়েছিলো ! এর ফলে অনেক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছিল !


৬. গল্ফ বলস :- ১ লা সেপ্টেম্বর ১৯৬৯ সালে গল্ফ এক্সেসিয়াস অনুভব করল আকাশ থেকে বলের মতো কি জানি একটা উপর থেকে পড়ছে , দেখতে থাকলো আকাশ থেকে গল্ফ বল পড়ছিল , টর্নেডোর সময়ে বাতাসে এই গল্ফ বল গুলো উড়ে বাতাসে এবং বৃষ্টির সাথে ঝরে পড়ে !


৭. মাংস বৃষ্টি :- ১৮৭৬ সালে লিটিল কান্তিকি টাউনে মাংসের বৃষ্টি হতে দেখা যায় ! এই মাংস গুলো ছিল ২.৪ ইঞ্চির মাপের একজন মানুষ এটি টেস্ট করলে জানা যায় এটি মাংসই ছিল ! বিজ্ঞানীদের কাছে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হলে বিজ্ঞানীরা বলে এটি ছিল মানুষের মাংস , বাজপাখিরা যখন মাংস খায় তখন তা পুরো শেষ না করে রেখে দেয় ,যখন জোরে ঝড় বা বৃষ্টি হলে তা উড়ে বৃষ্টির আকারে পৃথিবী পৃষ্ঠে পড়ে !

 


Spread the love

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *