অখিল ভারত হিন্দু মহাসভার প্রতিষ্ঠার ইতিহাস

Spread the love

ভারতবর্ষের সবচেয়ে প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী ঐতিহাসিক হিন্দুত্ব আন্দোলনের সাথে যুক্ত রাজনৈতিক সংগঠনঃ

অখিল ভারত হিন্দু মহা সভার প্রতিষ্ঠার ইতিহাস আনুমানিক ১২০০বছর পূর্বে অদ্বৈত বেদান্তবাদী দশনামী সন্ন্যাসী স্বামী মাধবাচার্য্য মহারাজ এক হিন্দু ধর্মসভায় বলেছিলেন, হিন্দুদের জাতীয় ঐক্য ধর্মীয় সামাজিক ও অর্থনৈতিক মজবুতের সাথে এক সামরিক জাতিতে পরিনত করা প্রয়োজন “l এই ভাবনাকে মূলধন করে ১৮৬৭ সালে লাহোর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাতা বাবু নবীনচন্দ্র রায়, রায়বাহাদুর চন্দ্রনাথ মিত্র ও পাঞ্জাব হাইকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি স্যার প্রতুলচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে গঠিত হয়

হিন্দুমেলা প্রথম সভাপতি নির্বাচিত হন স্যার প্রতুলচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ও সম্পাদক বাবু নবীনচন্দ্র রায় l ব্রিটিশ শাসনে প্রকৃত উদ্দেশ্য গোপন রাখতে এরপর ” মিত্র মেলা ও অভিনব ভারত” নামে চলতে থাকে সক্রিয় কাজকর্ম l এই সময় ঋষি রাজনারায়ণ বসু, নবগোপাল মিত্র, প্রিয়নাথ বসু, হেমেন্দ্রনাথ ঠাকুর ও স্বামীবিবেকানন্দ সহ দেশের খ্যাতনামা বিজ্ঞ মানুষ, সাধু সন্ন্যাসী, রাজা মহারাজা, জমিদার এবং সাধারণ মানুষ হিন্দুমেলার পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ l তাদের উদ্দেশ্য ভারতবর্ষের মাটি থেকে ব্রিটিশ শাসনের চির অবসান ঘটানো l প্রকৃতপক্ষে একদিকে হিন্দুত্ববাদের জনক, অন্যদিকে পৃথিবীর সমস্ত হিন্দু সংগঠনের মাতৃস্বরূপা ও মাতামহী তুল্য l পরবর্তীকালে এই হিন্দুমেলারই নাম পরিবর্তন করে নামাকরন করা হয় হিন্দুমহাসভা l


হিন্দুমহাসভা এক ইতিহাসিক জাতীয়তাবাদী রাজনৈতিক সংগঠন l পরাধীন ভারতবর্ষে ইষ্টইন্ডিয়া কোম্পানী(ব্রিটিশ শাসকদের) বিরুদ্ধে লড়াই করে স্বাধীন ভারতবর্ষ গঠনের লক্ষে এই সংগঠন আত্মপ্রকাশ করে l পরাধীন ভারতবর্ষে প্রথম রাজনৈতিক দল হিসাবে ইতিহাস স্বীকৃত l ১৯১৫ সালে ১লা বৈশাখ পবিত্র হরিদ্বারে এক সন্মেলনে বঙ্গের কৃতী সন্তান মহারাজা মনীন্দ্রচন্দ্রনন্দীর প্রস্তাবে সর্বসম্মতি ক্রমে এই সংগঠনের নামকরণ করা হয় #অখিলভারতহিন্দুমহাসভা l এই সম্মেলনেই মহারাজামনীন্দ্রচন্দ্র_নন্দী রাষ্ট্রীয় অধ্যক্ষ রূপে সর্ব সম্মতিক্রমে নির্বাচিত হন l পরিবর্তী সময়ে এই ঐতিহ্যবাহী বিপ্লবী সংগঠনের সাথে যুক্ত হন,

পন্ডিত মদনমোহন মালব্য
 শ্রীমন্ত রাজারাম পাল সিং
আর্য সমাজের স্বামী শ্রদ্ধানন্দ
শংররাচার্য  ডঃ কৃতকোঠি
শ্রীএনসি কেলকর
লালা লাজপত রায়
রাজা নরেন্দ্রনাথ
ডাক্তার বালকৃষ্ণ মুঞ্জে


RSS এর প্রতিষ্ঠাতা  ডাক্তার কেশব বলিরাম হেডগেওয়ার

শ্রী রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়
ভাই পরমান্দ
বৌদ্ধভিক্ষুউত্তম
শংরাচার্য ভারতী কৃষ্ণতীর্থ
স্বতন্ত্র বীর বিনায়ক সাভারকর
ডাঃ নারায়ণ ভাষ্কর খাড়ে
শ্রী বিজয় রাম রাঘবাচার্য্য


ভারতীয় জনসঙ্ঘ প্রতিষ্ঠাতা  ডঃ শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি

লক্ষণবলবন্তভোপটকর
গান্ধী হত্যায় অভিযুক্ত নাথুরাম গডসে
শ্রী নির্মল চন্দ্র চ্যাটার্জি
প্রফেসর  বীজীদেশ পান্ডে প্রমুখ l


ভারতবর্ষের স্বাধীনতা সংগ্রামে অখিল ভারত হিন্দুমহাসভার নেতা কর্মীদের রয়েছে স্বর্ণজ্জ্বোল ভূমিকা ও অবদান l
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়, অখিল ভারত হিন্দুমহাসভার বহিরভারতের সভাপতি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বিপ্লবী বীর রাসবিহারী বসুর নেতৃত্বে গঠিত হয় ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল আর্মি (INA) l ভারতবর্ষের গৌরব নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর হাতে INA র দায়িত্ব অর্পণের পর, স্বাধীনতা পাগল এই সামরিক বাহিনীর নামাকরন করেন আজাদ হিন্দ ফৌজ l হরিয়ানার রাজা এবং অখিল ভারত হিন্দুমহাসভার হরিয়ানার শাখার সভাপতি মহেন্দ্র প্রতাপ INA গঠনের জন্য বিপুল পরিমাণ অর্থ দান করে ভারতবর্ষের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসে স্মরণীয় হয়ে রয়েছেন l


INA ফৌজের বীরত্বে এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে অংশ গ্রহণে দেউলিয়া হয়ে ব্রিটিশ শাসকরা ভারত ত্যাগের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে l
ব্রিটিশরা ভারতবর্ষ ছেড়ে চলে যাবার সময়, রেখে যায় এক কলঙ্কজনক অধ্যায় l ব্রিটিশ দ্বারা লালিত পালিত কংগ্রেস, কম্যুনিস্ট, মুসলিম লীগ ও ব্রিটিশ চক্রান্তে দ্বিজাতী তত্ত্বের উপাসকরা ভারতবর্ষ কে করে দ্বিখন্ডিত l খন্ডিত ভূখন্ড নিয়ে ইসলামী মৌলবাদী এবং সন্ত্রাসবাদীদের মুক্তাঞ্চল হিসাবে জন্মগ্রহণ করে পাকিস্তান l ভারতবর্ষ খন্ডিত করার জন্য গঠিত হয় বাউন্ডারি কমিশন l


দ্বিজাতী তত্ত্বের উপাসকদের সম্মতিতে উক্ত কমিশন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে হুগলি নদীর পূর্বপার কলকাতা পর্যন্ত তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের অন্তর্ভুক্ত করা হবে l ১৯৪৭ সালের ১৪ আগষ্ট মধ্যরাতে নদীয়া, ২৪ পরগনা, মুর্শিদাবাদ জেলার বিভিন্ন প্রান্তে উড়তে দেখা যায় পাকিস্তানি পতাকা l এর বিরুদ্ধে গর্জে ওঠে অখিল ভারত হিন্দুমহাসভা l সতন্ত্র বীর সাভাকরের পরামর্শে ডঃ শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি ও নির্মল চন্দ্র চ্যাটার্জির নেতৃত্বে অখিল ভারত হিন্দুমহাসভা কর্মীদের দুর্বার আন্দোলনের ফলে, কলকাতা সহ হিন্দু অধ্যুষিত অঞ্চল ভারতভুক্ত করা হয় l গঠিত হয় ভারতের অঙ্গরাজ্য পশ্চিমবঙ্গ l


প্রকৃতপক্ষে পশ্চিমবঙ্গ নামক এই রাজ্য সৃষ্টির কারীগর ডঃ শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি এবং তাঁর দল অখিল ভারত হিন্দুমহাসভা l
এখন অবধি নির্যাতিত হিন্দু বাঙালিদের একমাত্র সহায় সম্বল এই পশ্চিমবঙ্গ l


Spread the love

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *