বিশ্বের অবিশ্বাস্য ৭টি বিল্ডিং

Spread the love

The dynamic tower

১. The dynamic tower:-

এই বিল্ডিং টি ২০২০ সালের প্রথমের দিকে তৈরি হয়েছে। বিল্ডিং টি ডুবাইতে বানানো হয়েছে। তৈরি করেছেন ইতালির নাগরিক আর্কিটেকচার ডেভিড ফিরাস।৮০ তোলা এই বিল্ডিংটির প্রত্যেক টি ফ্লোর কে ৩৬০ ডিগ্রী অ্যাঙ্গেলে ঘোরান যায়। যার কারণে বিল্ডিংটি প্রতিনিয়ত ঘুরতে থাকে।এই বিল্ডিংটি দেখতে খুব সুন্দর লাগে এই বিল্ডিং তৈরি করা শুরু হয়েছিল ২০০৮ সালে এবং তৈরি হয়ে পুরো ১২ বছর লেগেছে।

sands skypark buliding

২.Sands skypark buliding:-

এই বিল্ডিংটি সিংগাপুরে বানানো হয়েছে।প্রথমেই বিল্ডিংটি ৫২ তলায় তিনটি টাওয়ার বানানো হয়েছে। এরপর তিনটি টাওয়ারের উপরে স্কাইওয়ার্ক বানানো হয়েছে। এই স্কাইওয়াকের সুইমিংপুল রয়েছে। এই বিল্ডিংটি প্রয়োজনীয় সমস্ত জিনিস জিম শপিংমল সমস্ত জিনিস বিদ্যমান রয়েছে এই বিল্ডিংটিতে। এই বিল্ডিংটি খুবই সুন্দর দৃশ্যমান !

Agora tower Taiwan

৩.Agora tower Taiwan:-

এই বিল্ডিংটি তাইওয়ানের জিনি শহরে অবস্থিত। এই বিল্ডিং টিকে এয়ার পলিউশন এর কথা মাথায় রেখে বানানো হয়েছে।এই কারণে বিল্ডিং এর নিচ থেকে উপর পর্যন্ত গাছপালা লাগানো হয়েছে। এই গাছপালা লাগানোর জন্য বিল্ডিংটি দেখতে আরো সুন্দর লাগছে। এই বিল্ডিং এর ছাদে সোলার স্টেশন এর ব্যবস্থা রয়েছে। যার কারণে এই বিল্ডিঙে থাকা সকল ব্যক্তিরই বিদ্যুৎ নিয়ে কোন সমস্যা থাকবে না। এই বিল্ডিংটি তৈরি করা শুরু হয় ২০১০সালে এবং তৈরি শেষ হয় ২০১৭তে।

Songjiang hotel

৪.Songjiang hotel:-

এই বিল্ডিংটি চায়নায় সাংহাই শহরে বানানো হয়েছে। এই বিল্ডিংটি দুই পাহাড়ের মাঝে খাদ কেটে বানানো হয়েছে। কোনো মাটির ওপরে নয় এইজন্য এই বিল্ডিং এর ভেতরে আন্ডারওয়াটার হোটেল বানানো হয়েছে। তাই আপনি যদি অ্যাডভেঞ্চারপ্রিয় হন তাহলে আপনি এই ধরনের সামুদ্রিক দৃশ্য দেখতে দেখতে লাঞ্চ ও ডিনার করতে পারবেন এই বিল্ডিং এর মূল বিশেষত্ব এটাই।

Raffles city chongqing

৫.Raffles city chongqing:-

এই বিল্ডিংটি চায়নাতে চংকিং সিটিতে বানানো হয়েছে। এই বিল্ডিং টির বিশেষত্ব হল বিল্ডিংটি বানানোর জন্য প্রথমে ৬টি টাওয়ারকে ২৮ তলা করে বানানো হয়েছে। এর চারটি টাওয়ারের উপরে একটি গোলাকার স্কাই ভিড বানানো হয়েছে। ফলে এটি আর্কিটেকচারাল ডিজাইনের বিষ্যয় সৃষ্টি করেছে। এই বিল্ডিঙে শপিংমল ,অফিস ,হোটেল ও সমস্ত ধরনের বিশেষত্ব রয়েছে। বিল্ডিং এর বাকি দুটি টাওয়ারে হেলিপ্যাড বানানো হয়েছে। এই বিল্ডিংটি ২০২০ সালে বানানো সম্পন্ন হয়েছে।

Window City

৬.Penumbra:-

ফ্রান্সে বসবাসরত একটি স্টুডেন্ট টয়লাড শড তিনি এমন অসাধ্য সাধন করেছেন যা দেখে সব দেশ তার প্রশংসা করা শুরু করেছে। তিনি এমন একটি উইন্ডো সিটি বানিয়েছেন যে উইন্ডোটি সূর্যের আলোর সাথে সাথে নিজেকে এডজাস্ট করে নেয়। এই উইন্ডোটি রোদ থেকে বাঁচতে এদিক ওদিক ঘুরতে থাকে। এই উইন্ডোটিতে সূর্যের আলো পড়লেই বন্ধ হয়ে যায় আবার নিজে থেকেই খুলে যায়।

Xseed building

৭.Xseed building:-

এই দুনিয়ার সবচেয়ে লম্বা বিল্ডিং যা জাপান এটি করে দেখিয়েছেন। যা অন্য কোন দেশ করতে পারেনি। জাপান এমন বড় একটি বিল্ডিং এর প্রজেক্ট বানিয়েছে যে উড়োজাহাজ এর উপর দিয়ে উড়তে পারবে না। এই বিল্ডিং এর উচ্চতা ৪০০০ মিটার পর্যন্ত হবে। বিল্ডিং টির নকশা তৈরি হয়ে গেছে। এই বিল্ডিংটি ৬ কিলোমিটার চওড়া করে বানানো হবে ।এই বিল্ডিং দিতে কমপক্ষে ১০লক্ষ মানুষ একসঙ্গে থাকতে পারবে। আশা করা যায় এই বিল্ডিংটি ২০২৪ সালের মধ্যে কমপ্লিট হয়ে যাবে।

 


Spread the love

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *