খাদ্য সংকট

Spread the love


করোনা ভাইরাসের কারণে বিশ্ব মহামারী দরুন আগামী দিনে গোটা বিশ্ব খাদ‍্য সংকটের সম্মুখীন হতে পারে তাই এখন থেকেই আমাদের সচেতন হতে হবে ,খাদ‍্য নষ্ট করা চলবে না, খাদ‍্য উৎপাদনে সবাই কে যেকোনভাবে চেষ্টা করে যেতে হবে। ডাল উৎপাদনে আমাদের দেশ পুরোপুরি স্বয়ং নির্ভরশীল নয়।বাহিরের দেশ থেকে আমদানি করতে হয়।


১)যারা শহরে থাকেন, বাড়ির ছাদে /বারান্দায় টবে ফুল সব্জির চাষ করেন ,তারা এখন থেকেই ঐ স্হানে কি করে সব্জির ও ভেষজ উদ্ভিদ চাষ করা যায় দেখুন। অনলাইনে বীজ সংগ্রহ করা যায় কিনা দেখুন। যারা ছাদে / বারান্দায় কোনকিছুই গাছ টবে লাগান নাই ,তারাও আজ থেকে চেষ্টা করে দেখুন।এতে বাড়ির কিছুটা চাহিদার পূরণ হবে । অবশ‍্যই বীজ সংরক্ষন করে রাখবেন নতুন ফসল থেকে ।


২) যারা গ্রামে থাকেন ও বাড়ির একবারে কাছেই জমি আছে ,তারা যতটা পারেন কম জমিতে ,বিজ্ঞানসম্মত ভাবে চাষ করুন যাতে বেশি ফসল পাওয়া যায়।


৩) যেসব গাছ ও সব্জি আমাদের চিকিৎসা র কাজে লাগে ও শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় সেগুলোর চাষ করতে হবে , গাছ বেশি করে লাগাতে হবে ,পাকা ফসল থেকে বীজ সংগ্রহ বাড়াতে হবে।


৪) সরকারি দপ্তর থেকে যতটা সম্ভব যান্ত্রিক ভাবে কৃষি খামার গুলি র জমিতে চাষ করতে হবে। কৃষকদের কৃষি দপ্তর থেকে উন্নত মানের বীজ সরবরাহ করার কথা ভাবতে হবে।


৫) যেহেতু বেশি র ভাগ দেশ বর্ডার বন্ধ করে দিয়েছে, পরবর্তী কালে পশ্চিমবঙ্গে উৎপাদিত চিংড়ি বাইরের কোন দেশে বিক্রি হবে কিনা জানিনা, ঐ সমস্ত চিংড়ির ভেড়িতে মাছ ও অন‍্যান‍্য দেশী জিওল মাছ চাষ করা যায় কিনা দেখতে হবে। এক্ষেত্রে মৎস্য দপ্তর কে উদ‍্যোগী হতে হবে।

 


Spread the love

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *